মঙ্গলবার, ২১ মে ২০২৪, ০১:২৭ পূর্বাহ্ন

লালমনিরহাটে আওয়ামীলীগ-বিএনপির সংঘর্ষে  নিহত ১ আহত ৪

লালমনিরহাটে আওয়ামীলীগ-বিএনপির সংঘর্ষে  নিহত ১ আহত ৪

রংপুর টাইমস :

বিএনপির ও জামায়েতের ডাকা হরতালে লালমনিরহাটে আওয়ামীলীগ-বিএনপির সংঘর্ষের চিকিৎসাধীন অবস্থায় স্বেচ্ছাসেবকলীগ কর্মী নিহত হয়েছেন। এ সময় ৪ জন নেতাকর্মী আহত হয়েছেন। এঘটনায় জেলা জুড়ে পরিস্থিতি থমথমে বিরাজ করছে।

আজ রোববার (২৯ অক্টোবর) দুপুর ২টায় চিকিৎসাধীন অবস্থায় রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে মারা যান। বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন লালমনিরহাট জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাডভোকেট মতিয়ার রহমান।

এর আগে রোববার (২৯ অক্টোবর) সকাল সাড়ে ১০টায় লালমনিরহাট সদর উপজেলায় মহেন্দ্রনগরে বিএনপির ও আওয়ামীলীগের সাথে ধাওয়া পাল্টা ধাওয়া ও সংঘর্ষের ঘটনা ঘটে।

নিহত জাহাঙ্গীর হোসেন (৪৫) মহেন্দ্রনগর ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক লীগের সদস্য। নিহত জাহাঙ্গীর হোসেন লালমনিরহাট সদর উপজেলার মহেন্দ্রনগর ইউনিয়নের বেড়পাংগা গ্রামের আজিজার রহমান ছেলে।

এ ঘটনায় পুলিশ দুই রাউন রবার বুলেট নিক্ষেপ করে। আওয়ামীলীগের ৩ কর্মী ও বিএনপির ২ কর্মীসহ ৫ জন আহত হয়।

আহত আওয়ামীলীগ মধ্যে বাবলু (৩৫), রাজু (৩৮), দুলাল (৪৪) লালমনিরহাট সদর উপজেলার মহেন্দ্রনগর ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের কর্মী। অপরজন আহত পলাশ (২৬) আদিতমারী উপজেলা আওয়ামী লীগের কর্মী।

সরেজমিনে দেখা যায়, সকাল থেকে লালমনিরহাটের বিভিন্ন স্থানে ঝটিকা মিছিল ও পিকেটিং করতে থাকে বিএনপি নেতাকর্মীরা। সকাল সাড়ে দশটার দিকে সাপ্টিবাড়ি বাজারে সড়কে অবস্থান নিয়ে বিএনপি নেতাকর্মীরা হরতালের সমর্থনে বিক্ষোভ করতে থাকে। এক পর্যায়ে উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক রফিকুল আলম হরতাল বিরোধী মিছিল নিয়ে বের হলে ধাওয়া পালটা ধাওয়া শুরু হয়। এসময় বিএনপির দুই কর্মীকে পিটিয়ে আহত করা হয়।

পরে সকাল এগারোটার দিকে আদিতমারী উপজেলা বিএনপি অফিসের সামনে মিছিল নিয়ে যায় আওয়ামীলীগের নেতাকর্মীরা। এতে সংঘর্ষ শুরু হলে উভয় পক্ষের দুইজন আহত হয়। এসময় বিএনপির অফিসের চেয়ার ও সাইনবোর্ড ভাংচুর করে আওয়ামীলীগ সমর্থকরা। বর্তমানে পরিস্থি উত্তপ্ত হওয়ায় অতিরিক্ত পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে।

অপর দিকে সদর উপজেলার মহেন্দ্রনগরে বিএনপি-আওয়ামীলীকের মধ্যে সংঘর্ষে দুই আওয়ামীলীগ নেতাকে কুপিয়ে আহত করেন বিএনপি নেতাকর্মীরা। পরিস্থিতি শান্ত করতে পুলিশ দুই রাউন্ড রবার বুলেট নিক্ষেপ করে পরিস্থিতি শান্ত করেন।

এছাড়াও মিশন মোড় এলাকায় পুলিশের দুইটি মটরসাইকেল সহ চার মটরসাইকেলে ভাংচুর চালিয়েছে বিএনপি সমর্থকরা।

লালমনিরহাট সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) ওমর ফারুক বলেন,লালমনিরহাট শহরের আইনশৃঙ্খলা রক্ষায় শহরের বিভিন্ন এলাকায় পুলিশ মোতায়েন করা হয়েছে। বর্তমানে পরিস্থিতি শান্ত রয়েছে।

লালমনিরহাট জেলা পুলিশ সুপার সাইফুল ইসলাম বলেন, লালমনিরহাট জেলার পরিস্থিতি শান্ত। বিশৃঙ্খলা এড়াতে পুলিশ মোতায়েন রয়েছে। বর্তমানে আমি মহেন্দ্রনগরে অবস্থান করছি।

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2024 Rangpurtimes24.Com
Developed BY Rafi IT