বুধবার, ১৯ Jun ২০২৪, ০৪:৪৩ পূর্বাহ্ন

মোবাইলে প্রেম,ডেকে নিয়ে কলেজ ছাত্রীকে গণধর্ষণ

মোবাইলে প্রেম,ডেকে নিয়ে কলেজ ছাত্রীকে গণধর্ষণ

জেলা প্রতিনিধি, লালমনিরহাটঃ

লালমনিরহাটে দ্বাদশ শ্রেণির এক ছাত্রীর সাথে মোবাইলে প্রেমের পর কৌশলে ডেকে নিয়ে বিমানবন্দর রানওয়ে সংলগ্ন ভুট্টা ক্ষেতে
গণধর্ষণের অভিযোগ উঠেছে।

ঘটনাটি প্রথমে গোপন থাকলেও পরে লোকমূখে ছড়িয়ে পড়ে। ঘটনায় এখন পর্যন্ত কাউকে গ্রেফতার করতে পারেনি পুলিশ।

বর্তমানে ওই শিক্ষার্থী জেলা সদর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছেন।

রোববার(১৮ জুন) সকালে লালমনিরহাট সদর থানায় কথিত প্রেমিক সোহাগের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন নির্যাতিত কলেজ ছাত্রীর বড় বোন।

এর আগে শনিবার(১৭ জুন) সন্ধ্যায় লালমনিরহাট সদর উপজেলার এয়ারপোর্ট এলাকার ভুট্টা ক্ষেতে গণধর্ষণের ঘটনা ঘটে।

পুলিশ ও পরিবার সুত্র জানান,সোহাগ নামে বিমান বাহিনীর সদস্য পরিচয়ে লালমনিরহাট মজিদা খাতুন সরকারী কলেজের উচ্চ মাধ্যমিক দ্বিতীয় বর্ষের এক ছাত্রীর সাথে দুই বছর ধরে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলে। গত শনিবার(১৭ জুন) বিকেলে এয়ারপোর্টে দেখা করতে মোবাইলে কলেজ ছাত্রীকে ডেকে নেয় কথিত প্রেমিক সোহাগ। সেখানে বিয়ের প্রলোভনে পাশে ভুট্টা ক্ষেতে ডেকে নিয়ে ধর্ষণ করে কথিত প্রেমিক সোহাগ। এরই মধ্যে সোহাগের দুই বন্ধু সেখাননে উপস্থিত হলে পুর্ব পরিকল্পনা অনুযায়ী সোহাগের পর তার দুই বন্ধুও জোরপুর্বক কলেজ ছাত্রীকে ধর্ষণ করে ফেলে পালিয়ে যায়।

এদিকে রাত হলেও কলেজ ছাত্রীর সন্ধান না পেয়ে তার ফোনে যোগগাযোগ করলে বাঁচানোর আকুতি জানায়। পরে তার পরিবার দ্রুত ঘটনাস্থলে গিয়ে খোঁজা খুজি করে এবং জাতীয় জরুরী সেবা ৯৯৯ নম্বরে কল দিলে সদর থানা পুলিশ গিয়ে গুরুতর আহত অবস্থায় ভুট্টা ক্ষেত থেকে কলেজ ছাত্রীকে উদ্ধার করে লালমনিরহাট সদর হাসপাতালে ভর্তি করে।

এ ঘটনায় ঠিকানাহীন কথিত প্রেমিক সোহাগের মোবাইল নম্বর দিয়ে লালমনিরহাট সদর থানায় লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন নির্যাতিত কলেজ ছাত্রীর বড় বোন।

লালমনিরহাট সদর থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা(ওসি) এরশাদুল আলম বলেন, খবর পেয়ে কলেজ ছাত্রীকে উদ্ধার করে হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে। পরিবারের পক্ষ থেকে অভিযোগ পেয়েছি। মোবাইল নাম্বারের সূত্র ধরে অভিযুক্তকে গ্রেফতারের তৎপরতা চলছে।

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2024 Rangpurtimes24.Com
Developed BY Rafi IT