রবিবার, ২৩ Jun ২০২৪, ১০:২৫ পূর্বাহ্ন

কালিগঞ্জ ও আদিতমারীর ভোট কেন্দ্রগুলোতে ভোটার শূন্য

কালিগঞ্জ ও আদিতমারীর ভোট কেন্দ্রগুলোতে ভোটার শূন্য

জেলা লালমিনরহাট প্রতিনিধি।

ষষ্ঠ ধাপের দ্বিতীয় ধাপে উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে লালমনিরহাটের আদিতমারী ও কালীগঞ্জের দুই উপজেলায় কয়েকটি ভোট কেন্দ্রে ভোটার শূন্য দেখা গেছে। কেন্দ্রগুলোতে নেই ভোটারের চাপ। দায়িত্ব পালন করছেন আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। অপরদিকে একজন ভোটার হুইল চেয়ারের এসে ভোট প্রদান করায় বিষয়টি সবার নজর কাটছে।

 

মঙ্গলবার (২১মে) সকাল ১০টায় কালীগঞ্জে হাজারানীয়া উচ্চ বিদ্যালয় ও শ্রুতিধর জামির বাড়ি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ে ভোটার শূন্য দেখা গেছে।

শ্রুতিধর জামির বাড়ি সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় কেন্দ্রের প্রিজাই টিম অফিসার আবু সুফিয়ান বলেন,২ ঘন্টায় সাতটি বুথে প্রায় ১০০ টির মত ভোট পড়েছে। সকাল থেকে সুষ্ঠুভাবে ভোট গ্রহণ চলছে। তবে কেন্দ্রে কোন ভোটারের চাপ নেই।

আপর দিকে পুলিশ ও আনসার সদস্যরা কেন্দ্রের বাইরে দায়িত্বে রয়েছেন। ভোটারদের জন্য অপেক্ষায় আছেন প্রিসাইডিং অফিসার, সহকারী প্রিসাইডিং অফিসার এবং পোলিং এজেন্টরা। কিন্তু যাদের জন্য এতো সব আয়োজন, সেই ভোটারদের দেখা নেই। অর্থাৎ ভোটকেন্দ্র একেবারেই ফাঁকা।

এ উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে তিনজন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করলেও মূল প্রতিদ্বন্দ্বিতা হবে লালমনিরহাট-২ (আদিতমারী-কালীগঞ্জ) আসনের এমপি ও সাবেক সমাজকল্যাণমন্ত্রী নুরুজ্জামান আহমেদের ছেলে রাকিবুজ্জামান আহমেদ ও তার ছোট ভাই বর্তমান উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান মাহবুবুজ্জামান আহমেদের মধ্যেই। অপর প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী হচ্ছেন তারিকুল ইসলাম ওরফে তুষার। এবারের ভোটযুদ্ধে আপন চাচা-ভাতিজার মধ্যে বাঘের সিং ন্যায় লড়াইয়ের হতে পারে বলে দাবি সাধারণ ভোটারদের।

সরে জমিনে , সকাল আটটা থেকে দশটা পর্যন্ত বিভিন্ন ভোটকেন্দ্রে গিয়ে ভোটারদের উপস্থিতি কম দেখা গেলে দায়িত্ব থাকা
প্রিসাইডিং কর্মকর্তা ও রিটার্নিং কর্মকর্তার বলছেন বেলা বাড়ার সাথে সাথে ভোটারদের উপস্থিতিও বাড়বে। অপরদিকে ধান ও ভুট্টার কাজে ব্যস্ত রয়েছেন সাধারণ ভোটাররা।

হুইলচেয়ারে বসে ভোট কেন্দ্রে আসা অসুস্থ প্রতিবন্ধী মোহাম্মদ আলী বলেন,আমি অসুস্থ অবস্থায় নিজের পছন্দে প্রার্থীকে ভোট দিয়েছি। ভোট দিতে আমার কোন সমস্যা হয়নি। আমি ভোট দিতে পেরেছি এটি আমার কাছে বড় বিষয়।

কালিগঞ্জ উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান পদপ্রার্থী মাহবুব জামান আহমেদ বলেন,সকাল থেকে ভোটগ্রহণ সুষ্ঠু হলেও দুপুরের পরে ভোট প্রদানের আশঙ্কা প্রকাশ করছেন। তিনি দাবি করে বলেন, স্থানীয় সংসদ সদস্য ভোটকেন্দ্রে ভোট দিয়ে তিনি বাসায় যাওয়ার কথা কিন্তু তিনি না গিয়ে বিভিন্ন ভোটকেন্দ্রে ঘুরে বেড়াচ্ছেন। বিষয়টি আমি নির্বাচন কমিশনকে জানিয়েছি।

লালমনিরহাট জেলা রিটার্নিং কর্মকর্তা লৎফর কবির বলেন, সকাল থেকে লালমনিরহাটের দুই উপজেলায় শান্তিপূর্ণভাবে উপজেলা পরিষদের ভোটগ্রহণ চলছে। কেন্দ্রের বাইরে স্ট্রাইকিং ফোর্স, মোবাইল টিম ও স্পেশাল চেকপোস্ট। এছাড়া দুই উপজেলায় প্রায় ৫ হাজার পুলিশ ও আনসার সদস্য দায়িত্ব পালন করছেন।

Please Share This Post in Your Social Media

© All rights reserved © 2024 Rangpurtimes24.Com
Developed BY Rafi IT